Benefits of Ashwagandha - অশ্বগন্ধার উপকারিতা ও বিশেষ গুনাগুন



অশ্বগন্ধা
       এই গাছ সাধারণতঃ এক ফুট থেকে চার ফুট পর্যন্ত লম্বা হয়ে থাকে পাতাগুলি 3 - 5 ইঞ্চি পর্যন্ত দীর্ঘ এবং 2 - 4 ইঞ্চি পর্যন্ত বিস্তৃত হয় পাতার শেষাংশ বেশ সুচালো হয় ফুলগুলি ছোট এবং সাধারণতঃ হলুদ রংয়ের হয়
      এই গাছের মূল, ঔষধে ব্যবহৃত হয় কাঁচা এবং টাটকা মূল্ই ওষুধে ব্যবহার করা উচিত যদি কাঁচা বা টাটকা মূল না পাওয়া যায়, তাহলে শুকনো মূল দোকান থেকে এনে ব্যবহার করতে পারা যায় অশ্বগন্ধা তিক্ত কষায়যুক্ত রস, রসায়ন, উষ্ণবীর্য শক্তিবর্ধক

রোগে ব্যবহার: -
1. বাত পিত্ত রোগে - অশ্বগন্ধার মূলচূর্ণ করে তার সঙ্গে তিল তেল মিশিয়ে প্রাতে সন্ধ্যায় খেলে খুবই উপকার হয়
2. ক্ষয় রোগে - অশ্বগন্ধার মূলচূর্ণ, মধুসহ প্রত্যেহ তিনবার চেটে খেলে খুবই উপকার হয়
3. শ্বাস রোগে - অশ্বগন্ধার মূলের ক্ষারসহ গাওয়া ঘি ও মধু মিশিয়ে প্রত্যেহ 2 - 3 বার চেটে খেলে উপকার হয়
4. অনিদ্রা রোগে - অশ্বগন্ধার মূলচূর্ণসহ চিনি দুধ মিশিয়ে প্রত্যেহ শোবার আগে খেলে রাতে গভীর নিদ্রা হবে নিয়মিত এইভাবেই খেলে, অনিদ্রা রোগ আরোগ্য হবে
5. শোথ রোগে - অশ্বগন্ধার মূলচূর্ণসহ গাওয়া ঘি ও মধু মিশিয়ে প্রাতে সন্ধ্যায় খেলে উপকার হয়
6. রিকেট রোগে - শিশু দৈনন্দিন শুকিয়ে যাচ্ছে, কিছুতেই স্বাস্থ্য ফেরানো যাচ্ছে না; পুষ্টিকর খাদ্যেও কিছু হচ্ছে না এই অবস্থায় অশ্বগন্ধা মূলচূর্ণ অল্প গরম জলে দিয়ে বা গরম দুধ মিশিয়ে অথবা ঘি মিশিয়ে প্রতিদিন খাওয়ালে এক মাসের মধ্যে শিশুর, স্বাস্থ্য পুনরুদ্ধার হবে রিকেট অরোগ্য হবে
7. স্বপ্নদোষ রোগে - অশ্বগন্ধার মূলচূর্ণ কাঁচা দুধের সঙ্গে মিশিয়ে প্রত্যেহ রাতে শোবার আগে নিয়মিত একমাস খাবেন, এতে স্বপ্নদোষ দূর হবে তাছাড়া শুক্রবৃদ্ধিও হবে কারণ অশ্বগন্ধার মুলচূর্ণ শুক্রবৃদ্ধি কারক


Ashwagandha

           This tree is usually one foot to four feet tall. The leaves are up to 3 - 5 inches long and 2 - 4 inches wide. The ends of the leaves are quite smooth. The flowers are small and usually yellow in color.

       The root of this plant, used in medicine. Raw and fresh radish should be used in medicines. If raw or fresh root is not available, it can be used for dry roots and from the store. Ashwagandha is a bitterly absorbed juice, chemistry, aromatic and energizing.

Use in disease: -

1. In rheumatism and gall disease - it is very beneficial to crush Ashwagandha and mix it with sesame oil and eat it in the morning and evening.
2. In corrosion diseases - Ashwagandha radish, honey and honey, it is very beneficial to cheat three times.
3. In respiratory diseases - mixed with ghee and honey mixed with alkaline root of Ashwagandha, it is helpful to cheat 2 to 3 times a day.
4. In Insomnia - deep sleep will be done at night before bedtime after mixing sugar and milk with Ashwagandha root powder. By regularly playing this way, insomnia will be cured.
5. In Infectious Diseases - Singing ghee and honey along with the ashwagandha root is beneficial in the morning and evening.
6. Rickets Disease - Children are drying up daily, with no recovery; Nothing is happening in the nutritious diet. In this situation, the baby will be restored to health within a month after feeding daily with Ashwagandha basal hot water or mixed with hot milk or ghee.
7. Nocturnal Disease - Mix regular raw milk with Ashwagandha with regular raw milk for one month before bedtime at night, it will relieve Nocturnal. Moreover, there will be sperm growth. Because the root of Ashwagandha is the sperm growth factor.




Post a Comment

0 Comments